সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪৯ অপরাহ্ন

বইমেলায় থাকবে তিন স্তরের নিরাপত্তা, সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধির কড়াকড়িও

স্টাফ রিপোর্টার: এবারের বইমেলায় তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণপদ রায়। তিনি জানান, নিরাপত্তা ব্যবস্থার জোরদারের সঙ্গে করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষার জন্য থাকবে স্বাস্থ্যবিধির কড়াকড়িও। মেলায় দোকানদার-দর্শনার্থী সবাইকে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে।

অমর একুশে বইমেলার নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে মঙ্গলবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ডিএমপির অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্পে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান তিনি।

বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ও ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আগামী ১৮ মার্চ এবারের বইমেলার পর্দা উঠছে।

কৃষ্ণপদ বলেন, আমরা একটি ভিন্ন সময়ে বইমেলা শুরু করছি। প্রতিবছর আমাদের যে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়, এবার তার সঙ্গে করোনা পরিস্থিতি মাথায় রেখে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বইমেলা ঘিরে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে জানিয়ে তিনি বলেন, সাধারণ পোশাকে পুলিশ সদস্যরা থাকবেন, আর্চওয়েতে তল্লাশি করা হবে, সিসিটিভিতে হবে নজরদারি। এছাড়া গোয়েন্দারাও মাঠে থাকবেন।

তিনি জানান, বইমেলার প্রতিটি প্রবেশ পথে আর্চওয়ে থাকবে, বের হওয়ার জন্য থাকবে আলাদা পথ। ভিড় এড়াতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি সংলগ্ন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ফটক ও বাংলা একাডেমির বিপরীত পাশ দিয়ে আরও দুটি করে প্রবেশ ও বের হওয়ার পথ থাকবে এবার।

ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণপদ জানান, গাড়ি রাখার জন্য এবার বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে। বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মাঝের রাস্তা পথচারীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

তিনি বলেন, যারাই মেলায় আসবেন, তারা অবশ্যই মাস্ক পরে আসবেন। হাত ধোয়া কিংবা স্যানিটাইজ করার জন্য গেটে ব্যবস্থা থাকবে।

ভাইরাসের বাইরে অন্য কোনো হুমকি এবার দেখছেন কি না-এমন প্রশ্নে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, বিষয়টা আমাদের মাথায় রয়েছে। সে বিষয়টি মাথায় রেখেই আমাদের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করছে। মানুষের অনুভূতিতে আঘাত দেয় এমন বই প্রকাশ হচ্ছে কিনা আমরা খোঁজ রাখছি। কেউ অপরাধমূলক কাজ করছে কিনা সে ব্যাপারেও আমরা নজরদারি করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2014
Design & Developed BY ithostseba.com