রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ১১:০৮ অপরাহ্ন

‘বাংলায় পরিবর্তনের আগে দিল্লিতে পরিবর্তন হয়ে যাবে’

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে টানটান উত্তেজনা। কলকাতায় যখন মোদির ব্রিগেড সমাবেশ চলছে, তখনই শিলিগুড়িতে মোদির বিরুদ্ধে পথে নামলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

রোববার পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এদিন দার্জিলিং মোড় থেকে ভেনাস মোড় পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার হাঁটেন তৃণমূল নেত্রী। এরপর সফদর হাসমি চকে সভা করেন মমতা। আর সেই সভা থেকেই প্রধানমন্ত্রী মোদিকে তীব্র আক্রমণ করলেন মমতা।

এদিন ব্রিগেড থেকে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, শিলিগুড়ি থেকে তার উত্তর দিলেন মমতা। বললেন, মোদি যখন ফাঁকা ব্রিগেডে, আমি তখন রাস্তায়। কারণ রাস্তাই আমাকে রাস্তা দেখায়।

তোলাবাজ থেকে সিন্ডিকেট ইস্যুতে তুলোধনা করেন মোদি-শাহকে। কলকাতায় মোদির বড় গলার ভাষণেরও সরাসরি জবাব দেন সেখান থেকেই।

ব্রিগেডে যখন মোদি ভাষণ দিতে শুরু করে দিয়েছেন, ততক্ষণে সভামঞ্চে পৌঁছে যান মমতা। তার বেশ কিছুক্ষণ পর ভাষণ শুরু করেন। ভোটের মুখে বারবার প্রধানমন্ত্রীর বাংলায় আসা নিয়ে তোপ দাগেন তিনি।

ব্রিগেডের সভা থেকে মোদি বারবার বলেছেন, ‘বাংলায় এবার আসল পরিবর্তন হবে।’ পালটা মমতার হুঁশিয়ারি, ‘বাংলায় পরিবর্তন করতে পারবেন না। এ রাজ্যে তৃণমূল সরকারই থাকবে। তার আগে দিল্লিতে পরিবর্তন হয়ে যাবে।’

সভার শুরুতেই মোদির বাংলা সফর নিয়ে আক্রমণ করেন তৃণমূল নেত্রী। বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী রাজ্যে শুধু কুৎসা করতে আসেন। ব্রিগেডে বাংলা নিয়ে কথা বলার আগে ওর উচিত রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে জবাব দেওয়া। কেন গ্যাসের দাম বাড়ছে? পেট্রল-ডিজেলের দাম বাড়ছে? মোদিকে আগে সেই জবাব দিতে হবে। রান্নাঘরে আগুন লাগালে মা-বোনেরা ছেড়ে কথা বলবেন না।

মমতার মিছিলে কর্মী-সমর্থকদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। মমতার পাশেই ছিলেন মিমি চক্রবর্তী, নুসরত জাহান, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, দোলা সেনরা।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2014
Design & Developed BY ithostseba.com